একজন সাধারণ দর্শকের ডিপিএল উপলব্ধি

0
চ্যাম্পিয়নঃ শেখ জামাল ধানমন্ডি ধানমন্ডি ক্লাব

ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন টি২০ ক্রিকেট লীগের ফাইনাল দেখার জন্য মাঠে গিয়ে দেখি গেইটে প্রচুর ভীড়! ম্যাচ শুরু হওয়ার সাথেসাথে দেখি শেরে বাংলা জাতীয় স্টেডিয়াম সরাগম। যাক ভেবে দারুণ খুশি হলাম ঘরোয়া ক্রিকেটের মান বিভিন্ন সময় প্রশ্নবিদ্ধ হলেও অন্তত ঘরোয়া ক্রিকেট দেখার জন্য মাঠে এখনো প্রচুর দর্শক আসে।

পুরো ডিপিএলে দারুণ খেলে ফাইনালে ২৪ রানে জিতে চ্যাম্পিয়ন শেখ জামাল ধানমন্ডি আর রানার্সআপ প্রাইম দোলেশ্বর।

স্কোর কার্ড (সংগ্রহীত)

সিরিজ সেরা ফরহাদ রেজা। দোলেশ্বর অধিনায়ক পুরো ডিপিএলে ব্যাটিং, বোলিংয়ে ছিলেন অপ্রতিরোধ্য। ফাইনালেই প্রথমে বল হাতে নিয়েছেন তিন উইকেট; ম্যাচে বোলিং ফিগার ছিল ৪-০-৩২-৩। পরে ব্যাট হাতে ২০ বলে ২ চার, ৫ ছয়ে করেছেন ৪৫ রান। সেমিফাইনালে আরো দুরন্ত ফরহাদ রেজার বোলিং ফিগার ছিল ৪-০-৩২-৫; ব্যাট হাতে ২ চার, ২ ছয়ে ৮ বলে অপরাজিত ২৪ রানের ক্যামিও ইনিংস খেলে দলকে জিতিয়ে উঠেছেন। সব প্রাপ্তি ফরহাদ রেজার, শুধু হাতে চ্যাম্পিয়ন ট্রফি উঠেনি।

প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাবের অলক কাপালি সেমিতে খেলেছেন ৩১ বলে ৬ চার, ৩ ছয়ে ৫৫ রানের ইনিংস। অলকের সতীর্থ জাকির হাসান খেলেছিলেন ৩৯ বলে ৫২ রানের ইনিংস।

শেখ জামাল অধিনায়ক নুরুল ফাইনালে ৩৩, সেমিতে অপরাজিত ৪৩ রানের ইনিংস খেলেছেন। শেখ জামালের সেমিতে জয়ের নায়ক জিয়াউর রহমান মাত্র ২৯ বলে ৪ চার, ৭ ছয়ে খেলেছিলেন অপরাজিত ৭২ রানের ম্যাচ জয়ী দারুণ ইনিংস। সেই পুরোনো জিয়া!

ফরহাদ রেজার মতো ডিপিএলে দারুণ সফল শাইনপুকুর ক্রিকেট ক্লাবের শুভাগত হোম। প্রথম ম্যাচে ১০ বলে ৩২, দ্বিতীয় ম্যাচে ১৮ বলে ৫৮* (১৬ বলে করেছিল অর্ধশতক; যা টি২০ ক্রিকেটে বাংলাদেশি ব্যাটসম্যানের দ্রুততম)। সেমিফাইনালে করেছিলেন ১৭ বলে ৩১ রান। সেমিফাইনালে শাইনপুকুরের হয়ে তরুণ আফিফ হোসেন খেলেছিলেন ৪১ বলে ৬৫ রানের ইনিংস।

মুগ্ধ করেছে লেগী মিনহাজুল আবেদীন আফ্রিদি। ফাইনালে বোলিং ফিগার ছিল ৪-০-১০-১! আমাদের অনেকদিনের আক্ষেপ একজন লেগী না থাকা ছেলেটা কিছুটা পূরণ করতে পারবে কিনা সময় বলে দেবে।

যেখানে শুরু করেছিলাম সেখানেই শেষ করি! ক্রিকেটে এতো দর্শক দেখে আক্ষেপে পুড়ি আমাদের ঢাকা ডার্বি দেখার সময় দর্শক না দেখে। জৌলুশ হারানো আবাহনী মোহামেডান ম্যাচ দেখতে আসা লোকের সংখ্যা যে খুবই নগণ্য। ক্রিকেট হোক বা ফুটবল ঘরোয়া অবকাঠামো ঠিকঠাক হোক, মান বাড়ুক। একজন সাধারণ দর্শক হিসেবে তো এটাই কাম্য।

লিখা- রিফাত এমিল

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here